ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কি কিভাবে আপনি ফ্রিল্যান্সিং থেকে টাকা ইনকাম করবেন

অনলাইনে অনেক ধরনের কাজ রয়েছে যেগুলো করে আপনি মাসের শেষে একটি ভালো পরিমাণ ইনকাম করতে পারবেন সমস্ত অনলাইন ইনকাম এর মধ্যে ফ্রিল্যান্সিং হলো একটি জনপ্রিয় অনলাইন কাজ  যেটা দিয়ে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। বিশেষ করে বাংলাদেশ এই ফ্রিল্যান্সিং সরকারিভাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। এবং এই বাংলাদেশ থেকে হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন কাজ করে থাকেন। আজকে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করতে চলেছি যে ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কি কিভাবে আপনি ফ্রিল্যান্সিং থেকে টাকা ইনকাম করবেন

 ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কি কিভাবে আপনি ফ্রিল্যান্সিং থেকে টাকা ইনকাম করবেন



ফ্রিল্যান্সিং কি



ফ্রিল্যান্সিং কি এক কথায় প্রকাশ করতে গেলে ফ্রিল্যান্সিং হল অনলাইন কর্মচারী। বিশ্বে এমন অনেক কোম্পানি আছে যাদের কাছে হয়তো এত কর্মচারী নেই কিন্তু কাজ অনেক পড়ে আছে। এক্ষেত্রে সেই কোম্পানির লোক গুলো এমন একটি ফ্রিল্যান্সারকে খোঁজ করে যে কিনা তার কাজটি অনলাইনের দ্বারা করে দেবে। এটাই হলো ফ্রিল্যান্সারদের কাজ।

ফ্রিল্যান্সার হবেন কিভাবে


এমন অনেক ধরনের কোম্পানি আছে যারা ফ্রিল্যান্সারের খোঁজে থাকেন। তাদের মধ্যে জনপ্রিয় কিছু কোম্পানির নাম আমি উল্লেখ করলাম।




Freelancer.com, Fiberr.com, Peopleperhour.com এই কোম্পানিগুলোর মধ্যে আপনি ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করতে পারেন

ফ্রিল্যান্সার হওয়ার জন্য আপনাকে এসব কোম্পানির ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজের প্রোফাইল বানাতে হবে। এবং আপনি কি বিষয়ে এক্সপার্ট সে বিষয়গুলো শো করতে হবে।

এরপর বিভিন্ন ধরনের কাজ আপনাকে অফার করা হবে আপনি আপনার স্কিল অর্থাৎ দক্ষতা অনুযায়ী কাজ বেছে নিতে পারেন। আপনার দক্ষতা অনুযায়ী, আপনার কাজের পরিমাণ দেখে আপনি টাকার এমাউন্ট বসাতে পারেন। 

একবার যদি কোন কোম্পানির সাথে আপনার সুসম্পর্ক গঠন হয় তাহলে সেই কোম্পানি আপনাকে বারবার কাজ করার জন্য ডাকবে। আপনি আপনার কাজের জন্য ইচ্ছেমতো চার্জ করতে পারেন।




তবে ফ্রিল্যান্সার হতে গেলে একটা বিষয়ে আপনাকে মাথায় রাখতে হবে যে আপনি যেসব কাজ রিসিভ করবেন যেসব কাজের দক্ষতা সম্পন্ন হওয়া দরকার


কি সব কাজ রয়েছে ফ্রিল্যান্সারে


যদি বলা হয় কি কি কাজ করতে পারেন আপনি ফ্রিল্যান্সার জগতে, তাহলে হয়তো বলা আর শেষ হবে না। তবু কিছু কিছু জনপ্রিয় কাজ বিষয়ে আলোচনা করি।

এখানে যদি আপনি সাইট বানাতে পারেন এবং ডিজাইন করতে পারেন সেসব কাজ ও এখানে প্রচুর পরিমাণে কদর রয়েছে। ভিডিও এডিটিং এর কাজ যারা করেন তাদের কোন দিন বসে থাকতে হয় না।কারণ ভিডিও এডিটিং করার জন্য অনেক কোম্পানি এসব কাজদাতা দের খোঁজ করে।

এছাড়াও রয়েছে ডাটা এন্ট্রি, টাইপিং অনলাইন, টিচিং, ফটোশপ, ট্রানসলেশন অন্ড রাইটিং, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, লোগো ডিজাইন, গ্রাফিক ডিজাইনিং, সোশ্যাল মার্কেটিং, ইত্যাদি ইত্যাদি,




এসবের মধ্যে আপনি আপনার স্কিল অর্থাৎ দক্ষতা হিসেবে আপনার প্রোফাইল বানিয়ে নিন এবং কাজে লেগে পড়ুন।

এক্ষেত্রে একটা বিষয় মাথায় রাখা খুব দরকার যে বর্তমানে অনেক জালিয়াতি কোম্পানি যারা আপনাকে কাজ করিয়ে নেয় কিন্তু পেমেন্ট দেওয়ার বেলায় পাত্তা দেয় না সেই সব কোম্পানির কাছ থেকে দূরে থাকবেন।এখানে সেইসব কোম্পানি আপনাকে অনেক টাকার লোভ দেখিয়ে কাজ করিয়ে নেবেন এবং পেমেন্ট দেওয়ার সময় আপনার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেবে। বিশ্বস্ত কিছু কোম্পানির নাম আমি উপরে উল্লেখ করেছি যে কোম্পানি গুলোর সাথে আপনি নির্ভয়ের সাথে কাজ করতে পারেন।



ধন্যবাদ

বন্ধুরা আশা করছি আমি আপনাদের বোঝাতে পেরেছি যে ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কিভাবে টাকা ইনকাম করবেন (How To Make Money On Freelancing) আর কোন কোন কোম্পানি সাথে আপনি ফ্রিল্যান্সিং কাজে যুক্ত হতে পারবেন। আশা করছি আমি আপনাদের ঠিক ভাবে বোঝাতে পেরেছি।যদি কোন বিষয়ে কোন প্রশ্ন বা জানার ইচ্ছা থাকে তাহলে আমায় কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারেন।

পোস্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ
Previous
Next Post »